বাংলাদেশের বৃহত্তর জেলা কোনটি

বাংলাদেশের বৃহত্তর 10 জেলা জেলা রেঙ্কিং এবং তথ্য 2024 

আজ এই আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করব বাংলাদেশের বৃহত্তর জেলা কোনটি এবং সবচেয়ে বড় ১০টি জেলা সম্পর্কে। বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জেলা কোনগুলি এবং সবচেয়ে ছোট জেলা কোনগুলি জানতে বরাবরই আমরা আগ্রহী। তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে হাতের নাগালে মোবাইল থাকায় বই খুলতে যেন আমরা বরাবরই আলস্য বোধ করি। তবে আমরা চাইলেই খুব সহজে ইন্টারনেটে সার্চের মাধ্যমে পেয়ে যাচ্ছি আকাঙ্খিত তথ্য। আপনিও হয়ত সহজ পন্থায় জানতে আগ্রহী। তবে চলুন জেনে নিই বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা গুলি সম্পর্কে এবং উপভোগ করুন এই আর্টিকেলের সাথে। 

Table of Contents

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ১০ টি জেলা

বাংলাদেশের সর্বমোট ৬৪ জেলা রয়েছে। এর মধ্যে অনেক জেলার আয়তন অনেক বেশি আবার কিছু জেলার অনেক কম। এরমধ্যে বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা কোনটি  তা নিয়ে আজ আমরা বিস্তারিত আলোচনা করব। বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ১০ টি জেলাগুলি হলো-

রাঙ্গামাটি জেলা ( ৬,১১৬ বর্গ কিলোমিটার) 

বাংলাদেশের উত্তর পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত একটি জেলা হল রাঙ্গামাটি যা চট্টগ্রাম বিভাগের অন্তর্গত। আয়তনের দিক থেকে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ জেলা হলো রাঙ্গামাটি। দশটি উপজেলা এবং দুইটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত এই জেলা যার আয়তন ৬১১৬ বর্গ কিলোমিটার। প্রায় দশ লক্ষাধিক লোক এই জেলাতে বসবাস করে। চাকমা, মারমা,ত্রিপুরা, বুম, খেয়াং, লুসাই, রাখাইন এবং মুরং সহ প্রায় ১৪টি উপজাতির বসবাস হল এই জেলা। রাঙ্গামাটি দেশের একমাত্র জেলা যেখানে রিক্সার চলাচল নেই। দেশের সর্ববৃহৎ কাপ্তাই লেক এই রাঙ্গামাটিতেই অবস্থিত। এই হ্রদটি দেখার জন্য প্রতি বছর হাজার হাজার মানুষ রাঙ্গামাটিতে ভ্রমন করে। এর সৌন্দর্য এবং বৈচিত্র্যতা মন ভরিয়ে দেয়। বিশেষ করে লেকের দুই পাশে দাঁড়িয়ে থাকা পাহাড়গুলি আর তার ওপরের ছোট ছোট গ্রাম। কাপ্তাই হ্রদ ছাড়াও রাঙ্গামাটির অন্যান্য দর্শনীয় স্থান হল ঝুলন্ত সেতু, শুভলং ঝর্ণা, সাজেক ভ্যালি ,ডলুছড়িবন বিহার,  বনশ্রী পর্যটন কমপ্লেক্স, বৌদ্ধদের প্যাগোডা, রাজা হরিশচন্দ্র রায় এর আবাসস্থলের ধ্বংসাবশেষ, রাজবন বিহার ইত্যাদি। বাংলাদেশের চারটি  ভূ-উপগ্রহের মধ্যে একটি ভূ-উপগ্রহ অর্থাৎ  বেতবুনিয়ার কেন্দ্র এই রাঙ্গামাটিতে অবস্থিত। 

ভারত এবং মায়ানমারের সীমান্তবর্তী জেলা হলো রাঙ্গামাটি। বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা কোনটি? এই প্রশ্নটির উত্তরে একটাই নাম আমাদের মনে আসে সেটি হলো রাঙ্গামাটি। এটি যেমন আয়তনে বৃহত্তম তেমনি এর সৌন্দর্য ও বৈচিত্র্যতায় রয়েছে প্রাচুর্য। এটি শুধু পর্যটন কেন্দ্র হিসেবেই পরিচিত নয় বরং আতিথিয়তার জন্য রয়েছে রাঙামাটির বিশেষ পরিচিত। এই বৃহত্তম আয়তনও সৌন্দর্য্য মোড়ানো জেলাটিতে ভ্রমণের জন্য একবার যদি যান তবে  বারবার যেতে মন চাইবে।

চট্টগ্রাম জেলা ( ৫,২৮৩ বর্গ কিলোমিটার) 

বাংলাদেশের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত একটি জেলার নাম হলো চট্টগ্রাম। এটি বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম জেলা এবং বাণিজ্যিক শহর হিসেবে  বিখ্যাত। চট্টগ্রামে প্রায় ৪২ লক্ষ মানুষের বসবাস এবং আয়তন ৫২৮৩ বর্গ কিলোমিটার। এই জেলাটি ১৫ টি উপজেলা এবং ১৫ টি পৌরসভা ও একটি সিটি কর্পোরেশন নিয়ে গঠিত। এটি বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রাচীন জেলা যা গঠিত হয়েছে ১৬৬৬ সালে। এই জেলাটির পুরাতন নাম ছিল “চিটাগং”। বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা কোনটি? প্রথম রাঙ্গামাটি হলেও চট্টগ্রাম অনায়াসেই দ্বিতীয় বৃহত্তম জেলা। 

অর্থনৈতিকভাবে চট্টগ্রাম একটি সমৃদ্ধ শহর। শিক্ষা ব্যবস্থা থেকে শুরু করে যোগাযোগ ব্যবস্থা, স্বাস্থ্য, নগর-বন্দর, পর্যটন শিল্প, পোশাক শিল্প ইত্যাদিতে ক্রমাগতভাবে বিকাশ ঘটেছে যা আকর্ষণীয়। বাংলাদেশের বৃহত্তম সমুদ্র বন্দরটিও অবস্থিত চট্টগ্রাম জেলায় যার কারণে বৈদেশিক বাণিজ্যের প্রায় ৯০% কাজ এই বন্দর দিয়ে হয়। ফলে বাণিজ্যিকভাবে চট্টগ্রাম শহরটি অনেক বেশি সমাদৃত। এছাড়াও চট্টগ্রাম জেলাটি সমৃদ্ধ তার ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতির জন্য যা পর্যটকদের তার কাছে নিয়ে যাওয়ার জন্য আকৃষ্ট করে। প্রতিবছরই দেশ-বিদেশ থেকে হাজার হাজার মানুষ চট্টগ্রামে ভ্রমণ করতে যায়। 

বান্দরবান জেলা (৪,৪৭৯ বর্গ কিলোমিটার) 

বাংলাদেশের দক্ষিণ পূর্ব অঞ্চলে অবস্থিত একটি জেলা হল বান্দরবান যা চট্টগ্রাম বিভাগের অন্তর্গত। এই জেলাতে অবস্থিত জনসংখ্যা প্রায় চার লাখ ৮০ হাজার এবং এর আয়তন ৪৪৭৯ বর্গ কিলোমিটার। বান্দরবান একটি পার্বত্য জেলা এবং এর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য অত্যন্ত মোহনীয়। বাংলাদেশের সবচেয়ে সুন্দর পর্যটন শহরগুলির মধ্যে বান্দরবান অন্যতম। এই জেলার প্রধান নদীর নাম হল সাঙ্গু নদী। অপরূপ সৌন্দর্যে ঘেরায় এই জেলার পর্যটন এলাকাগুলি  মধ্যে রয়েছে কেওক্রাডং পাহাড়, নীলগিরি পাহাড়, থানচি জাতীয় উদ্যান, লামা জাতীয় উদ্যান রোয়াংছড়ি জাতীয় উদ্যান, আলীকদম জাতীয় উদ্যান ও নাইক্ষ্যংছড়ি জাতীয় উদ্যান। সর্বোপরি যেন উদ্যানে ভরপুর এই জেলা। এছাড়াও থানচিতে রয়েছে নাফাখুম, দেবতাখুম ইত্যাদি মনমুগ্ধকর পর্যটন এরিয়া। যেখানে পাহাড় এবং ঝর্ণা মিলেমিশে একাকার। বলা যায় ভ্রমন পিপাসুদের জন্য স্বপ্নের জায়গা।

খুলনা জেলা (৪,৩৯৫ বর্গ কিলোমিটার) 

খুলনা জেলা হলো বাংলাদেশের চতুর্থ বৃহত্তম জেলা। এটি বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিম অঞ্চলে অবস্থিত খুলনা বিভাগের অন্তর্ভুক্ত। এই জেলার আয়তন ৪৩৯৪.৪৫ বর্গ কিলোমিটার এবং ২৩ লাখ ৭৮ হাজার ৯৭১ জন মানুষের বসবাস। এখানে রয়েছে অনেক স্কুল কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়। এছাড়াও স্বাস্থ্যশিক্ষা এবং যোগাযোগ ব্যবস্থায় খুলনা জেলা অনেক উন্নত। বিশেষ করে পদ্মা সেতু হওয়ার পর অর্থনৈতিকভাবে খুলনা সমৃদ্ধ হতে শুরু করেছে। পূর্বে খুলনা জেলার রাস্তাঘাটগুলি মসৃণ না থাকলেও বর্তমানে এর সংস্কার কাজ চলছে।

ময়মনসিংহ জেলা (৪,৩৬৩ বর্গ কিলোমিটার) 

বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা কোনটি?  এর উত্তর আমার ক্রমাগতভাবে আলোচনা করছি যা অব্যাহত রয়েছে। বাংলাদেশের উত্তর-মধ্যাঞ্চলে অবস্থিত ময়মনসিংহ জেলা একটি প্রশাসনিক অঞ্চল যা ময়মনসিংহ বিভাগের অন্তর্গত। এই জেলার আয়তন ৪৩৬৩ কিলোমিটার এবং জনসংখ্যা রয়েছে প্রায় ৩৫ লাখ। এই জেলার মানুষের প্রধান পেশা হচ্ছে কৃষি এবং প্রধান ফল হল আম। এখানে  অনেক ঐতিহাসিক স্থাপনা রয়েছে সেগুলি হল ময়মনসিংহ চিড়িয়াখানা, ময়মনসিংহ শহীদ স্মৃতিস্তম্ভ, মহারাজ ঈশা খাঁর মসজিদ, ময়মনসিংহ জাতীয় জাদুঘর ইত্যাদি। এছাড়াও  শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীনের সংগ্রহশালা এবং বাংলাদেশের সবচাইতে উঁচু পাহাড় চূড়া গারো পাহাড় এর অবস্থান এই জেলাতে। যার আয়তন প্রায় ৮ হাজার বর্গ কিলোমিটার।

নোয়াখালী জেলা (৪,২০২ বর্গ কিলোমিটার) 

বাংলাদেশের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত নোয়াখালী জেলা। এটি  চট্টগ্রাম বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। এই জেলার আয়তন ৪২0২ বর্গ কিলোমিটার এবং জনসংখ্যা প্রায় ২৫ লক্ষ। এই জেলার মানুষের প্রধান পেশা হলো কৃষি। এছাড়াও আম, ধান, কলা, পাট ইত্যাদি উৎপাদন হয় এই জেলায়। নোয়াখালী এখন শিক্ষা, সংস্কৃতি এবং অর্থনীতিতে অনেক এগিয়ে আছে। এখানে রয়েছে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং ঐতিহাসিক স্থাপনা এবং ঐতিহাসিক স্থাপনা হল নোয়াখালী জাদুঘর যা নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলায় অবস্থিত। বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা কোনটির উত্তরে নোয়াখালী জেলা ছয়তম। 

বাগেরহাট জেলা (৩,৯৫৯ বর্গ কিলোমিটার

খুলনা বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল হল বাগেরহাট জেলা। এটি দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থিত। এই জেলার সর্বমোট আয়তন ৩৯৫৯ বর্গ কিলোমিটার এবং জনসংখ্যা প্রায় ১৪ লাখ ৬৫০০০। এই জেলার অর্থনৈতিক কৃষি নির্ভর। উৎপন্ন প্রধান ফসলগুলি  হল আলু, পাট, ভুট্টা, সরিষা, ধান, ডাব ইত্যাদি। এখানকার প্রধান নদী গুলো হল কপতাক্ষ মধুমতি পদ্মা ভৈরব চিত্রা ও কালদিয়া। এছাড়াও এখানে রয়েছে টেক্সটাইল মিল, সিমেন্ট কারখানা, পাটকল ইত্যাদি। আপনি নিশ্চয়ই ষাট গম্বুজ মসজিদের কথা শুনেছেন অথবা বইয়ে পড়েছেন। বাগেরহাটে এই মসজিদের অবস্থান এছাড়াও এখানে আরো অনেক দর্শনীয় স্থান রয়েছে যেমন- চন্দ্রমহল, সুন্দরবন জাতীয় উদ্যান, বাগেরহাট শহর জাদুঘর, হিরনপুর মসজিদ, দুর্গাপুর মসজিদ ইত্যাদি। সর্বোপরি বলা যায় বাগেরহাট একে জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে সুপরিচিত।

সাতক্ষীরা জেলা (৩,৮৫৮ বর্গ কিলোমিটার) 

সাতক্ষীরা জেলাটি খুলনা বিভাগের অন্তর্গত। এই জেলার আয়তন ২০১৮ কিলোমিটার এবং জনসংখ্যা ২০১৩ অনুযায়ী বিশ লাখ ৭৯ হাজার ৮৪ জন। এখানকার প্রধান নদী গুলো হল কপতাক্ষ নদ, ভৈরব নদ এবং চিত্রানদ। এই জেলার অর্থনীতি কৃষি নির্ভর। এই জেলার প্রধান ফসনগুলি হল ধান, গম, ভুট্টা, আলু, মাছ ইত্যাদি। বিভিন্ন শিল্প কারখানার সাথে এই জেলার চিংড়ি মাছের উৎপাদনও বেশ ভালো। শিক্ষা ও সংস্কৃতিতেও সাতক্ষীরা অনেক এগিয়ে যাচ্ছে। এই জেলার কিছু ঐতিহাসিক স্থাপনাগুলি হল- সাতক্ষীরা জমিদার বাড়ি, সাতক্ষীরা মসজিদ, সাতক্ষীরা জাদুঘর, সাতক্ষীরা পাহাড় ইত্যাদি।

সুনামগঞ্জ জেলা (৩,৭৪৭ বর্গ কিলোমিটার) 

বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত সিলেট বিভাগের একটি অন্তর্গত জেলা হল সুনামগঞ্জ। সিলেটের পূর্বে অবস্থিত ভারতের আসাম রাজ্য। এর আয়তন ৩০৭৪৭ বড় কিলোমিটার এবং জনসংখ্যা ২৪,৬৭,৯৬৮ জন ২০১১ সাল অনুযায়ী। সুনামগঞ্জের প্রধান নদী হল সুরমা নদ। কৃষি নির্ভর এই জেলার প্রধান ফসলগুলো হলো ধান, গম, আলু, সরিষা, মাছ, ফল ইত্যাদি। এখানে রয়েছে বিভিন্ন শিল্প কারখানা যেমন- সিমেন্ট কারখানা, জুতা কারখানা, টেক্সটাইল মিল ইত্যাদি। এছাড়াও এই জেলার রয়েছে ঐতিহ্যবাহী লোকজ সংস্কৃতি। এখানকার ঐতিহাসিক স্থাপনা গুলি হল সুনামগঞ্জ মসজিদ, সুনামগঞ্জ জমিদার বাড়ি, সুনামগঞ্জ পাহাড় এবং জাদুঘর ইত্যাদি। তবে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ঘেরা সুনামগঞ্জ জেলা।

সিলেট জেলা  (৩,৪৫২ বর্গ কিলোমিটার

বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা কোনটি? বৃহত্তম জেলার কাতারে  সিলেট জেলা থাকবে দশম জেলা হিসেবে। বাংলাদেশের উত্তর পূর্বাঞ্চলের একটি জেলা হল সিলেট। সিলেটের জনসংখ্যা ২০১১ অনুযায়ী ৩৮ লাখ ৫৩ হাজার ৫৭০ এবং আয়তন ৩৪৫২.০৭ বর্গ কিলোমিটার। সিলেটের প্রধান নদী হল সুরমা নদ, সারি নদ, কুশিয়ারা নদ। এই জেলার মানুষও কৃষি নির্ভর। এখানে  মূলত ধান আলো ভুট্টা গম সরিষা ইত্যাদি বেশি উৎপন্ন হয়। সিলেটের রয়েছে নিজস্ব বৃহত্তম জেলার কাতারে সংস্কৃতি এবং ঐতিহাসিক বিভিন্ন স্থাপনা। শিল্প কারখানায় সিলেট  অনেক এগিয়ে রয়েছে। অনেকেই সিলেটকে মিনি লন্ডন হিসেবে আখ্যায়িত করেন। তবে এই জেলা সবচেয়ে বেশি পরিচিত তার মনমোহনীয় পর্যটন এরিয়া এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্য। একবার যদি সেখানে ঘুরতে যান তবে এর মনমুগ্ধকর সৌন্দর্যে আপনি আটকে যাবেন। সিলেটের দর্শনীয় স্থানগুলি হল শাহজালাল রাদিয়াল্লাহু এর মাজার, মালোনি ছাড়া চা বাগান, বিছানাকান্দি, লালাখাল জাতীয় উদ্যান, জাফলং, সিলেট বিভাগীয় জাদুঘর এবং সিলেটের  বিভাগীয় পাঠাগার  অত্যন্ত জনপ্রিয়।

বাংলাদেশের সবচেয়ে ধনী জেলা বাংলাদেশের 

পরিসংখ্যান ব্যুরো অনুযায়ী বাংলাদেশের স্যাম্পল ভাইটাল ২০২১ সালের প্রতিবেদন মতে, সবচেয়ে বেশি ধনী লোকের সংখ্যা ঢাকা বিভাগের নারায়ণগঞ্জ জেলা এবং ঢাকা বিভাগের ধনির সংখ্যা প্রায় ২১%।  নারায়ণগঞ্জ  জেলায় প্রতি ১০০ জনের মধ্যে মাত্র 2.6 জন মানুষ দারিদ্র সীমার নিচে বসবাস করে বাকি সবাই দারিদ্র সীমার উপরে বসবাস করে । দরিদ্র কম এরকম দশটি জেলার মধ্যে সাতটি জেলা ঢাকা বিভাগে অবস্থিত। 

সবচেয়ে গরিব জেলা কোনটি

বাংলাদেশের বৃহত্তর জেলা কোনটি ইতিমধ্যে আমরা জেনেছি। এখন জেনে নেই গরীব জেলা সম্পর্কে। ২০১৬ সালের বিশ্ব ব্যাংকের সংজ্ঞা অনুযায়ী, কোন মানুষ যদি দৈনিক ১.৯০ ডলার বা ১৪৮ টাকার কম আয় করে তবে তাকে দরিদ্র্য বলে গণ্য করা হবে। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো অর্থাৎ বিবিএস এর ২০১৬ সালে  পরিসংখ্যান অনুযায়ী বাংলাদেশের সবচেয়ে দরিদ্র জেলা কুড়িগ্রাম। এই জেলা রংপুর বিভাগে অবস্থিত। এই বিভাগে প্রায় ৭০.৮%  মানুষ দারিদ্র সীমার নিচে বসবাস করে। ২০১৬ সালের খানা আয় ও ব্যয়ের জরিপ অনুসারে,  রংপুর বিভাগে দেশের সবচেয়ে বেশি ৪৭ শতাংশ গরীব মানুষ  রয়েছে।

বিশেষজ্ঞগন বলেছেন দেশের দরিদ্র অঞ্চলগুলি আরো দরিদ্র থেকে যাচ্ছে তাই এগুলোতে শিল্পায়নের উদ্যোগ নেওয়ার জন্য সরকারকে আহবান জানিয়েছেন। এতে করে হাজার হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে এবং দারিদ্র্যতা দূর হবে।

বহুল জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন 

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ও ছোট জেলা কোনটি? 

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জেলা রাঙ্গামাটি এবং ক্ষুদ্রতম জেলা নারায়ণগঞ্জ। 

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় বিভাগ কোনটি? 

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় বিভাগ কোনটি 

আয়তনে বাংলাদেশের  বৃহত্তম বিভাগ হল চট্টগ্রাম। 

বাংলাদেশের সবচেয়ে ছোট বিভাগ কোনটি 

আয়তনে বাংলাদেশের ক্ষুদ্রতম বিভাগ ময়মনসিংহ। 

বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বড় বিভাগ কোনটি? 

আয়তনে বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিভাগ হল ঢাকা।

উপসংহার 

আজ এই আর্টিকেলের  সাথে থেকে আশা করছি আপনারা খুব উপভোগ করেছেন। ইতিমধ্যে আমরা বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা কোনটি তা ক্রমাগতভাবে আলোচনা করেছি বাংলাদেশের দশটি জেলা সম্পর্কে। উপরোক্ত ১০ টি জেলার মধ্যে রাঙ্গামাটি হল সবচেয়ে বড় জেলা এবং সিলেটের অবস্থান সবশেষে। তবে জনসংখ্যার দিক দিয়ে বিবেচনা করলে এখানে আলোচিত কোন জেলায় প্রথম হবে না। কারণ জনসংখ্যার দিক হতে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জেলা হল ঢাকা। আশা করছি এই দশটি জেলা সম্পর্কে আপনার জানার পরিসর বৃদ্ধি পেয়েছে এবং এই বিষয়ে আর কোন সংশয় থাকবে না। 

বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা কোনটি? এর উত্তর একটিই রাঙ্গামাটি। বাংলাদেশের রয়েছে সবচেয়ে বড় ১০ টি জেলা।  রাঙ্গামাটি আয়তনে সবচেয়ে বড়।  ভরপুর একটি জেলা।   

Leave a Comment